২৩ জুলাই বসছে বন্টু-মিন্টু’র আড্ডা!

আপনারা কি আমাদের চেহরাটা দেখতে চান কিংবা নিজের চেহারাটা দেখাতে চান? অথবা, উবুন্টু বা লিনাক্স মিন্টের প্রচার করতে গিয়ে নিজে কি কি নাকানি-চুবানি খেয়েছেন কিংনা কার কার কাছে দাবড়ানি খেয়েছেন সেইসব মনের দুঃখের কথা বলার মানুষ পাচ্ছেন না? অথবা এইসব উবুন্টু আর লিনাক্স মিন্টু ‘অ্যাজাইরা প্যাঁকপ্যাঁক’ শুনতে শুনতে আপনি চরম বিরক্ত? বহুদিন ধরে ভাবছেন ‘সামনে পাইলে এক ঝাড়িতে লিনাক্সের ভুত ভাগাইয়া দিতাম!’, কিন্তু ভুত ভাগানোর লোকগুলোকে সামনে পাচ্ছেন না? কিংবা ‘হুমম, এরা যে এতো নাচতেছে, এগো স্বার্থটা কি?!’ ভেবে মাথা চুল্কে টাক ফেলার যোগাড় করে ফেলছেন? ব্যস! তাবড় প্রশ্ন আর সমস্যার সমাধান দিতে বাংলাদেশের সকল চিপাচাপা থেকে সব বন্টু আর মিন্টু-রা ঢাকায় জড় হচ্ছেন

আগামী ২৩ জুলাই, ২০১০!

তো আসুন, সবাই মিলে একটু আড্ডা মারি।

অনুষ্ঠানের বিস্তারিত:

অনুষ্ঠানের নাম: বন্টু-মিন্টুর আড্ডা
তারিখ: ২৩ জুলাই, ২০১০, শুক্রবার
সময়: বিকাল ৩:৩০ থেকে সন্ধ্যা ৭:৩০
স্থান: আরসি মজুমদার মিলনায়তন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
ফেসবুক ইভেন্ট লিংক: ক্লিক করুন…

==
পড়তে পড়তেই কি একগাদা প্রশ্ন আসলে মনে? এই পোস্টটা তাহলে আপনার জন্য:

পাইকারি প্রশ্নের দরকারি উত্তর:

প্রশ্ন ১: ‘বল্টু’ জিনিসটা কি? আর ‘মিন্টু’-টাই বা কে?
উত্তর: শব্দটা ‘নাট-বল্টু’-র বল্টু নয়। ‘বন্টু’! আমরা উবুন্টু ব্যবহারকারীদের সহজ বাংলা নাম দিয়ে ফেলেছি ‘বন্টু’ আর লিনাক্স মিন্ট ব্যবহারকারীরা হল গিয়ে ‘মিন্টু’!

প্রশ্ন ২: আচ্ছা, বুঝলাম! তা আড্ডার জায়গাটা কোথায়?
উত্তর: জায়গা বড়ই সোজা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আরসি মজুমদার অডিটোরিয়াম

প্রশ্ন ৩: হুমম, তা এত্তো লোক একসাথে একত্রিত হবার উদ্দেশ্যটা কি?
উত্তর: উদ্দেশ্য হইল দেখা-সাক্ষাৎ, গ্যাঁজাগ্যাঁজি, একসাথে বসে ফিলিম দেখা, হা-হা হি-হি এবং কেনাকাটি।

প্রশ্ন ৪: কেনাকাটি? হাটবাজার বসাইতেছেন নাকি?
উত্তর: এক পদের হাট-ই। এই হাটে পাবেন উবুন্টু আর মিন্টের লোগোওয়ালা টি-শার্ট। আরো পাবেন উবুন্টু আর লিনাক্স মিন্টের অতিরিক্ত সফটওয়্যারসহ (যেগুলো সাধারণত নেট থেকে নামাতে হয়) কাস্টোমাইজড ডিভিডি।

প্রশ্ন ৫: আচ্ছা, কেনাকাটি বুঝলাম। ‘ফিলিম দেখা’-র কাহিনী তো বুঝলাম না!
উত্তর: আড্ডার শুরুতেই আমরা সবাই মিলে একটা প্রামান্যচিত্র দেখব। নাম Revolution OS. এই প্রামান্যচিত্রে আছে OS (Open Source) এবং Free Software (Free as Freedom) এর মহারথীদের সাক্ষাৎকার। যা থেকে OS (Open Source) এবং Free Software আন্দোলনের পেছনের কারণ এবং দর্শন পানির মত বোঝা যাবে। জানা যাবে দুনিয়ার কিছু মানুষ কি স্বপ্নের কারণে পাগলের মত এইসব বনের মোষ দৌড়ে বেড়াচ্ছে।

প্রশ্ন ৬: তা তো বুঝলাম, কিন্তু আপনার ‘ফিলিম’-এর ভিতরে তো পাইরেসির গন্ধ পাই।
উত্তর: আমরা প্রথমে এটি কেনার চিন্তা করছিলাম। সেই প্রক্রিয়ায় ব্যর্থ হয়ে আমরা যোগাযোগ করেছিলাম এর পরিচালক জে.টি.এস. মুর এর সাথে। আমাদের উদ্দেশ্য জেনে তিনি শর্ত সাপেক্ষে আমাদের এই মুভিটি দেখাবার (লিখিত) অনুমতি দিয়েছেন। তবে শর্ত একটাই, মুভির ফাইল কপি কিংবা পুনঃবিতরণ করা যাবে না।

প্রশ্ন ৭: ফিলিম কি ইংরেজি? আমি তো ইংরেজি বুঝি না!
উত্তর: ইতিমধ্যেই এই প্রামাণ্যচিত্রের বাংলা সাবটাইটেল তৈরি করার কাজ শুরু হয়েছে। ২৩ তারিখের মধ্যে কাজ শেষ করা গেলে বাংলা সাবটাইটেলসহই দেখা যাবে।

প্রশ্ন ৮: বাহ! বাহ!! তা আমি তো লিনাক্স ইউজ করি না। আমি কি আসতে পারব?
উত্তর: জ্বি, অবশ্যই পারবেন।

প্রশ্ন ৯: আমি তো ঢাকার বাইরে থাকি। আমি কি আসতে পারব?
উত্তর: আপনি দুনিয়ার যেই চিপাতেই থাকেন না কেন, আপনি আমন্ত্রিত।

প্রশ্ন ১০: আমি কি আমার সাথে আর কাউকে নিয়ে আসতে পারব?

উত্তর: জ্বি, আপনি যতজন খুশি নিয়ে আসতে পারবেন

প্রশ্ন ১১: কোন মেয়ের মনে যদি এরকম প্রশ্ন জাগে, “হুম আপনাদের বন্টু-মিন্টু’র মিটিং এ কি কোন আপু আসবেনা মনে হয়। আমি এসে কি করবো ?”

উত্তর: এর আগের প্রতিটি আড্ডায় এসেছিলো। আর এবার অনেকের আসার কথা। কারণ, এবারের মতো জাকজমকপূর্ণ এবং এতো জায়গা নিযে় আর কখনো হয়নি। সেই সাথে এবার স্পন্সর করছে একটি কোম্পানি প্রায় ২০হাজার টাকা দিযে়। কেউ না এলেও যে ঢাবি’র ছাত্রীরা আসবেন সেটি নিশ্চিত। কারণ, পাশের রোকেযা়/শামসুন্নাহার হলের ছাত্রীরা বা বুয়েটের ছাত্রীরা সুযোগটি মিস করবে বলে মনে করিনা। আর অনেকের বান্ধবীরাও সাথে আসবে আগেও যেমন এসেছে। সুতরাং চলে আসুন।

বি.দ্র

লেখাটি উন্মাতাল_তারুণ্য ভাইয়ের আমাদের প্রযুক্তির এই পোস্ট থেকে তুলে নেওয়া।

বন্টু-মিন্টু’র ব্যাবহৃত ব্যানারটি তৈরী করেছেন প্রিয় অভ্রনীল ভাই

আপনি আসছেন তো বন্টু-মিন্টুর আড্ডায়?

“২৩ জুলাই বসছে বন্টু-মিন্টু’র আড্ডা!”-এ 24-টি মন্তব্য

    • মামুন ভাই
      ১) ম্যানেজমিন্ট টিম হচ্ছে উবুন্টু বিডি টিম!
      ২) টিশার্ট ও ডিভিডির প্রাইস দুইটা মিলে ২০০ টাকার উপরে যাবে না আশা করা হচ্ছে! (শিওর না…কারণ দাম নির্ধারিত হয় নি)
      ৩) কোন এন্ট্রি ফি নাই!!! সবার জন্য উন্মুক্ত!!!

    • হাহাহা! হাসালেন ভাই! পোস্টে আগেই বলা হয়েছে যেকোন মানুষ আমন্ত্রিত! পারলে আপনার মাদ্রাসার বন্ধু-বান্ধবদের নিয়েও চলে আসতে পারেন!

  1. ভাইয়া, মেয়েরা কি আসবে? মানে আরো মেয়েরা কি থাকবে? এটা তো ছেলেদের জিনিস, আর কাউকেই তো চিনিনা তাই এতগুলো ছেলের মাঝখানে অন্য কোনো মেয়ে না আসলে নিজেকে একটু বেখাপ্পা মনে হবে ঐখানে।

    ব্যানারটা খুব কিউট হয়েছে। আপনিতো গ্রাফিক্সের মাস্টার দেখি!

    • First Of All…
      আমাকে ভাই বলবেন না আপু। আমি অনেক ছোট হব বয়েসে আপনার থেকে। আমার সম্পর্কে বিস্তারিত একবার পড়ে আসুন।.
      হ্যা…এবার আসা যাক আপনার প্রসঙ্গে!
      আপনার মত আরেকজন ছেলে প্রশ্ন করেছিল:

      হুম আপনাদের বন্টু-মিন্টু’র মিটিং এ কি কোন আপু আসবেনা মনে হয়। আমি এসে কি করবো ?

      উত্তর: এর আগের প্রতিটি আড্ডায় এসেছিলো। আর এবার অনেকের আসার কথা। কারণ, এবারের মতো জাকজমকপূর্ণ এবং এতো জায়গা নিযে় আর কখনো হয়নি। সেই সাথে এবার স্পন্সর করছে একটি কোম্পানি প্রায় ২০হাজার টাকা দিযে়। কেউ না এলেও যে ঢাবি’র ছাত্রীরা আসবেন সেটি নিশ্চিত। কারণ, পাশের রোকেযা়/শামসুন্নাহার হলের ছাত্রীরা বা বুয়েটের ছাত্রীরা সুযোগটি মিস করবে বলে মনে করিনা। আর অনেকের বান্ধবীরাও সাথে আসবে আগেও যেমন এসেছে। সুতরাং চলে আসুন।

      সুতরাং বুঝতেই পারছেন আপু কোন অসুবিধা হবে না! আপনার অনেক বন্ধুরই দেখা পেয়ে যেতে পারেন!!! আর আপনার বান্ধবীরা তো আমন্ত্রিত হয়ে আছেই!

    • সাইফ হাসান এই ব্যানারের ডিজাইনার নয়। এটা অভ্রনীল দার করা আমাদের “বুন্টু-মিন্টুর আড্ডা”র ব্যানার। সাইফ কে সামনে পেলে ইমুন বাটানি দিমু, দেখা তো হচ্ছেই ২৩ তারিখে, বুঝামুনি কৃতজ্ঞতা স্বীকার না করার ঠেলাটা।

      • আজব তো! আমি তো কোথাও কই নাই আমি বানাইছি! তবে এইটাও জানতাম না যে নীলুদা বানাইছে! তবে আন্দাজ করছিলাম!
        যাইহোক মূল পোস্টের সাথে কৃতজ্ঞতাসহ প্রশ্ন টা এড করে দিলাম!

  2. হুমম…. আমিও ভাবছিলাম মন্তব্যটা কোন ছেলে করেছে !
    আমার ছোট বোনও আড্ডায় যেতে চাইছে বেশি পুচকি (ক্লাস সেভেন এ পড়ে) বলে আমি কোন সাড়া দেই নাই। ও আবার উবুন্টু ভালবাসে। দেখি শেষ পর্যন্ত কি করা যায়।

  3. আপনার ব্লগে কমেন্ট করা সময় একটু সমস্যা আছে। আমি কিন্তু আমার আগের মন্তব্য টি reply করি নাই। কিন্তু সেটা reply হিসেবে দেখাচ্ছে… নিচের চিত্রটা দেখুন।
    comment problem
    হঠাৎ করে আবার ঠিক হয়ে যায়। তাই এবার চিত্র সহ প্রমান দিলাম।
    আমি আপনার সাইটের রেজিস্টার করা পাঠক….পাসওয়ার্ড ব্রাউজারে সেভ করা তাই বরাবরের মত …..

    আপনার মন্তব্য জমা দিন।
    Logged in as সাইফ. লগআউট করুন->

    এখান থেকে লেখা শুরু করলাম।

    • এবার ইচ্ছা করে আমার মন্তব্যের রিপ্লাই করলাম। দেখি কি হয়। সময় ব্যবধান দেখুন। তাহলেই বুঝতে পারবেন… মন্তব্য সিরিয়াল উল্টা-পাল্টা দেখায়।

      • মন্তব্য সিরিয়ালে আজব সমস্যা হইছে দেখা যায়! আমার মনে হয় শুধু এই পোস্টেই সমস্যাটা হয়েছে! অন্যান্য সব জায়গায় ঠিক আছে!
        সাময়িক অসুবিধার জন্য দুঃখিত!

  4. “অসাধারণ গ্রাফিক্স মাস্টার” কি জিনিস? উল্লেখ করতে চাইলে শুধু নাম দাও, না দিতে চাইলে সমস্যা নাই, কিন্তু এইসব আলগা বিশেষণ ব্যবহার করার কোনোই দরকার নাই… তোমার কপালে সিরিয়াস প্যাদানি আছে!

    আর মাউসের রাইট বাটন অকেজো করে রাখসো কেনো, কমেন্ট লিখতে খবর হয়ে যাচ্ছে, আপ-ডাউন অ্যারো কোনো কাজ করেনা! মাউস নিয়ে ভেজালের জন্য আরেক দফা পিটানি বরাদ্দ করলাম।

    তারিখের এই অবস্থা কেন? জুন দেখায় কেন? কমেন্টের সিরিয়ালের কোনো আগামাথা নাই! তবে আগে আমার পক্ষ থেকে দুই স্লটে প্যাদানি ও মাইর বরাদ্দ হয়ে যাওয়ায় কমেন্টের এই ফাইজলামির জন্য ছাড় দিলাম।

  5. ভাইরে! এইবার কিন্তু সত্যই ডরাইতাছি!
    মিটআপে আসলে মনে হয় সিরিআস মাইর খাইতে হবে!
    আর হ্যা…রাইট ক্লিক অফ করার কারণ তো দেখেছিলেনই! তাও ডিজাবেল করে দিলাম! অনেকেই মনে হয় সমস্যা ফিল করছে! (ধন্যবাদ জানানোর জন্য!)
    আর ডেটটা ভুল দেখাচ্ছে এইডা এইমাত্র টের পাইলাম!!! ঠিক করার চেষ্টা করছি! আবারো ধন্যবাদ জানানোর জন্য!
    আর কমেন্ট সমস্যাটা শুধু এই পোস্টেই! বাকি সবজায়গায় ঠিক আছে! ঠিক করতে গেলে লাস্টের তিনটা কমেন্ট মুছে দিতে হবে! দিলাম মুছে! এইবার আর সমস্যা হবে না!

        • নারে ভাই, এটা সত্যি না! শখের বশে গ্রাফিক্স করা আর “অসাধারণ গ্রাফিক্স মাস্টার” দুইটা ভিন্ন জিনিস। আমি আসলেই কিছু জানিনা, গিম্পতো পারিইনা। ইংক্সস্কেপের হাজার হাজার ট্রিক্সের মাঝে মাত্র সাত আটটা জানি, সেগুলোকেই বিভিন্ন কম্বিনেশনে ব্যবহার করি। সেজন্য দেখবে যে আমার বানানো ব্যানারগুলো সবই প্রায় একই রকম। এটাকে গ্রাফিক্স মাস্টারের আওতায় ফেলা যায়না। সেজন্যই বলছিলাম যে বিশেষণটা সরিয়ে দাও। নাহলে লোকে ভুল বুঝবে। আমি যেটা নই খামাখা সেটা বলে বরিয়ে লাভ আছে?

          • ইংক্সস্কেপের আরো কয়েকটা ট্রিক্স শিখে অসাধারণ গ্রাফিক্স মাস্টার হয়ে উঠুন এই কামনাই করছি!

মন্তব্য করুন