Categories
বিবিধ

শহীদ মিনারে বিভৎসতা! মিডিয়া কেন নিশ্চুপ?

সেদিন ভাষা দিবসের দিন মানে একুশে ফেব্রুয়ারী হঠাৎ আবছা আবছা ভাবে কিছু জিনিস কানে আসছিল….
কিন্তু সেটা কানে দিইনি…
পরে যখন সামহোয়্যার ইন ব্লগের রিংকু সাহেবের পোস্টটা পড়লাম ! ঝকঝকে পরিষ্কার মনে হল সবকিছু!
সেটারই কিছু বর্ণনা করছি…

সবগুলো ছবিতে ক্লিক করলেই পূর্ণ মাপে দেখতে পাবেন।

২১ ফেব্রুয়ারীর দিন দুপুরের পর শহীদ মিনারে গিয়ে সাজানো ফুল দেখার অভ্যাস চলে আসছে অনেক বছর আগে থেকেই। এবার দুপুরের পর দুনিয়া কাঁপানো ৩০ মিনিটের আহব্বান সামনে রেখে আরো বিপুল উৎসাহ নিয়ে মিনারে গেলাম…. দুনিয়া কাঁপাতে কাঁপাতে বীরদর্পে তারা এলেন… আমার সাজানো গোছানো শহীদ মিনার একদল কেমন যেন মানুষ দাপা-দাপি করে লন্ড-ভন্ড করে দিয়ে চলে গেল। কারা এরা…অনেকে বলল… কর্পোরেট বাহিনী… অনেকে বলল বাংলার বিরোধীরা এই সাজে এসেছে যেন আমরা তাদের বুঝতে না পারি। আমার হতে ক্যামেরা ছিল… দেখুন

সাজানো গোছানো শহীদ মিনার।

ফুলে ফুলে ভরা।

শ্রদ্ধাঞ্জলী।

আসছে দুনিয়া কাপানো ৩০ মিনিট

দুনিয়া কাপবেই

টার্গেট শহীদ মিনার।

প্রথম আঘাত।

ছিন্ন ভিন্ন হল শ্রদ্ধার ফুল।

বিভৎস উল্লাস।

এরা কারা? কি চায়?

মিনারে পাগলা উম্মাদন।

দুনিয়া কাপছেঁ

হায়রে।

সব শেষ।

তবুও কেউ কেউ ফূল ভালবাসে।

দুনিয়া কাপানো ৩০ মিনিট, ভুলিনি ভুলবোনা।

আরও মজার ব্যাপার হল দুনিয়া কাঁপানো ৩০ মিনিটের স্পন্সর ছিল প্রথম আলো…
তাদের পত্রিকায় আজকের সংবা ছিল এটা:

সত্যি ! প্রথম আলোর মুখে আর বদলে যাও বদলে দাও মানায় না!
যারা নিজেরাই কালপ্রিট!
শত ধিক !

সূত্র: রংমহল

By সাইফ দি বস ৭

পুরো নাম সাইফ হাসান। ছোটকাল থেকেই প্রযুক্তি, কম্পিউটার সম্পর্কিত বিষয়ে প্রচুর আগ্রহ এবং কৌতূহল। বর্তমানে কর্মরত আছেন উইডেভসের প্রোডাক্ট ম্যানেজার হিসেবে। হিউম্যান সেন্টার্ড ডিজাইন, প্রোডাক্ট ম্যানেজমেন্ট এবং এজাইল প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্টেই ব্যস্ত থাকতে পছন্দ করেন।

4 replies on “শহীদ মিনারে বিভৎসতা! মিডিয়া কেন নিশ্চুপ?”

ভাইরে…এই পোস্টটার কথা চিন্তা করলেই মেজাজটা খিচড়ে যায় !!!
মিডিয়ার মুখে জুতা মারি…

Leave a Reply to rifatahmad Cancel reply